লাইন চার্ট এর বিস্তারিত

লাইন চার্ট এর বিস্তারিত

লাইন চার্ট তথ্যের সিরিজকে সংযুক্ত করে প্রকাশ করে। এটি ফাইনান্সিয়াল মার্কেট এর বেসিক চার্ট এবং বেশ সহজে বুঝা যায় এবং মার্কেট এর প্রয়োজনীয় তথ্য এক নজরে দেখে নেয়া যায়। লাইন চার্ট একটি নির্দিষ্ট সময়ে,কোন শেয়ার/কারেন্সি পেয়ার এর ক্লোজিং প্রাইজ এর উপর তথ্য প্রদান করে। যে কোন টাইম ফ্রেমেই এই চার্ট এর ব্যবহার করা যায়। তবে অধিকাংশ সময়ই এর ব্যবহার হয় প্রতিদিনের চার্ট এ। 

লাইন চার্ট

লাইন চার্ট একটি ফাইনান্সিয়াল ইন্সট্রুমেন্ট( শেয়ার/ কারেন্সি পেয়ার) এর প্রাইজ, সময় সাথে সাথে যে পরিবর্তন হয় ,এবং পেয়ার এর যে বর্তমান অবস্থান রয়েছে তা একেবারে সহজ করে ট্রেডারদের জন্য প্রকাশ করে। যেহেতু লাইন চার্ট এ শুধুমাত্র ক্লোজিং প্রাইজ এর প্রদর্শন হয়, তাই ওপেন, হাই, লো এর ফলে চার্ট এ যে অস্থিরতা থাকে( অন্যান্য যেমন বার চার্ট,ক্যন্ডেলষ্টিক চার্ট)  তা থাকে না। ক্লোজিং প্রাইজ এর গ্রাফিক্যাল প্রদর্শন এবং স্পাইক না থাকার ফলেই ইনবেষ্টর এবং ট্রেডারদের কাছে জনপ্রিয় করেছে, ক্লোজিং প্রাইজ একটি শেয়ার/কারেন্সি পেয়ার এর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য। ট্রেডারগন অন্যান্য চার্ট এর সাথে সমন্বয় করেও এই চার্ট এর ব্যবহার করতে পারেন। 

লাইন চার্ট ব্যবহার এর সুবিধাসমূহ

সচ্ছতাঃ-  অনেক বেশি তথ্য যখন এনালাইসিস করা হয় অনেক সময় এটি ট্রেডারদের সঠিক সিদ্ধান্ত নেয়ার পথে অন্তরায় হয়ে উঠে। “The more you analyze the more you paralyze” যত অধিক তথ্য নিয়ে আপনি পর্যবেক্ষন করবেন ততই তা বিশ্লেষণ করা জটিল হয়ে পড়বে তাই লাইন চার্ট হতে পারে সহজ সমাধান। এই চার্ট সবচেয়ে সহজবোধ্য, যেখানে মার্কেট এর একটি তথ্যের মাধ্যমেই প্রাথমিকভাবে প্রয়োজনীয় সকল তথ্য প্রকাশ হয়, প্রদত্ত নির্দিষ্ট সময়ের ক্লোজিং প্রাইজ বা ওপেনিং প্রাইজ ডট আকারে চিন্তা করুন, তাদের মধ্যে সংযোগ লাইন টানলে যে রেখা পাওয়া যায় তাই হল লাইন চার্ট। এই চার্ট ম্যানুয়ালি হাতেও আঁকা সম্ভব।

যখন চার্টে প্রাইস এর স্পাইকগুলোর ফলে ভিন্ন ভিন্ন ইন্ডিকেটর এর ভিন্ন ভিন্ন তথ্যের বহিঃপ্রকাশ করে, তখন ট্রেডার এবং ইনবেষ্টরগন গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধ্বান্ত গ্রহনে কনফিউসড হয়ে পড়েন এবং যার ফলে সম্ভাব্য সঠিক সময়ে ট্রেড নেয়া থেকেও বিরত রাখে। যেখানে লাইন চার্ট এর ব্যবহার এর ট্রেডারকে গুরুত্বপূর্ণ সাপোর্ট এবং রেসিস্ট্যান্স খুজে পেতে সহায়তা করে। এই চার্ট  এ বেশ কিছু চার্ট প্যাটার্নও সহজে বুঝা যায়। নিচের উদাহরনে লাইন চার্ট সাপোর্ট এবং রেসিস্ট্যান্স হিসেবে ভূমিকা পালন করে। 

সাপোর্ট এবং রেসিস্টান্স

ব্যবহার করা সহজঃ- প্রথমে যারা ট্রেডিং শুরু করেন তাদের জন্য এই চার্ট বেশ উপযোগী কারন এটি ব্যবহার করা বেশ সহজ। অন্যান্য এডভান্স লেভেল চার্ট বুঝার পূর্বেই এ চার্ট থেকে বেশ কিছু উপযোগী তথ্য সম্পর্কে শেখা যায় যা পরবর্তীতে, ক্যান্ডেল চার্ট এনালাইসিসে ভূমিকা রাখে। লাইন চার্ট এ সময়ের সাথে সাথে মুবিং এভারেজ এবং ভলিউম খুবই সহজে প্রয়োগ করা যায় এই শেখার সময়েই। 

লাইন চার্ট এর কিছু সীমাবদ্ধতা

এডভান্স ট্রেডারদের স্ট্রেটিজিতে অনেক সময় বেশ কিছু তথ্য প্রয়োজন হয়, প্রয়োজনীয় পর্যাপ্ত তথ্য ট্রেডিং ডিশিসন নিতে লাইন থেকে পাওয়া যায় না। কিছু কিছু স্ট্রেটিজিতে হয় ওপেন হাই লো এবং ক্লোজিং এর। যেমন কোন ট্রেডার যদি এই সিদ্ধান্ত নেয় যে গত ২১ দিনের প্রাইজ এর নিচে যদি আজকের প্রাইজ ক্লোজ হয় তবে ট্রেড নিবেন এমন ট্রেডারদের জন্য এবং যাদের   স্ট্রেটিজির জন্য বেকটেস্টিং এ ক্লোজিং ছাড়া অন্যান্য তথ্যের প্রয়োজন বা মার্কেট ভোলাটিলিটির তথ্য উপলব্ধি করার জন্যও বা প্রাইজ ওপেন হয়ে কত পথ অতিক্রম করেছে তা জানতেও অন্যান্য চার্ট এর সহযোগিতা প্রয়োজন।